Home / লাইফস্টাইল / এই গরমে মেকাপের কয়েকটি টিপস

এই গরমে মেকাপের কয়েকটি টিপস

গরমকালে মেকাপ করে মনে শান্তি পাওয়া যায় না। কারন মেকাপ খুব বেশি সময় ত্বকে থাকেনা। কিন্ত এই সময় অনুষ্ঠান বাড়িও কম থাকেনা। মেকাপতো তাই করতেই হবে। সে গৃহবধূ হোক বা অফিসের নিত্য যাত্রী সবারই মেকাপ করার দরকার পরে।

কিন্তু মেকাপ করার পর যদি ভালোভাবে টা না থাকে তখন সত্যি খারাপ লাগে। তাই মেকাপ হালকা করতে হয়। এমনভাবে করতে হয় যাতে সেটি গলে না যায়, অনেকটা সময় থাকে। তাই মেকাপ করার আগে বেসিক কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হয়। তাহলে মেকাপ গলে যাবার চিন্তা থাকেনা।

১. অয়েল ফ্রি মেকাপ 

গরমকালে অতিরিক্ত ঘামের সঙ্গে মেকাপও গলে যায়। আর যাদের তৈলাক্ত ত্বক তাদের আরও সমস্যা হয়। মেকাপের প্রথম ধাপ হল মুখ পরিষ্কার করা।  তাই ব্যবহার করুন অয়েল ফ্রি ফেসওয়াশ। এবং মুখের বেস মেকাপের জন্য যাই ব্যবহার করুন সেটি যেন অয়েল ফ্রী হয়। অয়েল ফ্রি মেকাপ এখন বাজারে প্রচুর পাওয়া যায়। তা ব্যবহার করে সহজেই সুন্দর মেকাপ করতেই পারেন।

২. ফাউণ্ডেশন

ফেসওয়াশ বা ক্লিনজিং মিল্ক  দিয়ে মুখ পরিষ্কার করার পর, টোনার ব্যবহার করতে ভুলবেন না। কারন ক্লিনজিং মিল্ক ত্বকের ছিদ্রগুলিকে খুলে, জমে থাকা ময়লাকে বার করে। আর টোনার সেই ছিদ্র  পুনরায় বন্ধ করে। এটি না হলে ওই ছিদ্রগুলি দিয়ে ধুলোবালি ঢোকে। এরপর মুখে অব্যশই সানস্ক্রিন লোশান বা পাউডার লাগান। এতে তেল দূর হবে, এবং মেকাপ অনেকটা সময় থাকবে। যদি ফাউণ্ডেশন ব্যবহার করেন তাহলে অয়েল ফ্রি ফাউণ্ডেশন বা পাউডার বেস ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা ভালো। তাহলে ফাউন্ডেশন গলে যাবে না।

৩.ওয়াটার প্রুফ কসমেটিক্স 

মেকাপ ত্বকে অনেকখন রাখার একটি উপায় আমরা সবাই জানি। সেটি হল বরফ। মেকাপ করার আগে যদি কয়েক টুকরো বরফ নিয়ে ২০-৩০মিনিট লাগান, তাহলে মেকাপ অনেকটা সময় থাকে। আর মেকাপ যাতে গলে না যায় ,তার জন্য ওয়াটার প্রুফ মেকাপ ব্যবহার করতে পারেন। এটি গলে যাবার কোন সম্ভবনা নেই। ওয়াটার প্রুফ কাজল, লাইনার সবই ওয়াটার প্রুফ ব্যবহার করবেন।

৪. ব্লোটিং পেপার

আপনি কি খুব ঘামেন? তার ফলে মেকাপ নষ্ট হয়ে যায়? তাহলে সেই ঘাম কোন কাপড় বা রুমাল দিয়ে না মুছে, সাথে রাখুন ব্লোটিং পেপার। এটি দিয়ে মুছলে ঘামও যাবে আর মেকাপও উঠবে না। সকালের অনুষ্ঠানে বি বি ক্রিম লাগাতে পারেন। এটি গলবেও না আর সুন্দর লুক দেবে। এবং অয়েল ফ্রি কমপ্যাক্ট ব্যবহার করুন। এটি অতিরিক্ত তেলকে শুষে নেয়। ওপরে ল্যুজ পাউডারও  লাগিয়ে নিতে পারেন অনেকক্ষণ মেকাপ রাখার জন্য।

৫. চোখ ও ঠোঁটের মেকাপ 

মুখের মেকাপ হালকা করলে চোখের মেকাপ ভারী করতে হয়। আর মুখের মেকাপ ভারী হলে চোখের মেকাপ হালকা করতে হয়। তবে গরমে মুখের মেকাপ যেহেতু  হালকা করাই ভালো তাই চোখকে হাইলাইট করতে পারেন।

চোখে ওয়াটার প্রুফ লাইনার দিয়ে ওপরের পাতায়, আর তার সঙ্গে ওয়াটার প্রুফ মাসকারা লাগিয়ে নিন ঘন করে। আর নীচের অংশে হালকা করে কোন হার্বাল কাজল ব্যবহার করুন। তার সঙ্গে জামার সঙ্গে ম্যাচ করে হালকা রঙের অ্যাই শ্যাডো লাগান। আর দিনের বেলা চোখের ওপর এবং নীচ দুদিকেই ঘন করে কাজল দিয়ে চোখ আঁকতে পারেন। স্মোকি আই চাইলে কাজল লাগানোর পর স্মাজার দিয়ে স্মাজ করে নিতে পারেন। এর পর ঠোঁটের পালা।

ম্যাটফিনিশ বা ন্যুড লিপস্টিক লাগাতে পারেন। এটা কিন্তু এখন খুব ফ্যাশনে ইন। জামার সঙ্গে ম্যাচ করে যেকোনো রঙ। বা বেবি পিঙ্ক বা গাড় লাল রঙটি কিন্তু দারুন লাগে। যদি লিপস্টিক তাড়াতাড়ি উঠে  যাবার সমস্যা থাকে তাহলে, আপনার কমপ্যাক্টটি হালকা করে পাফ্ করে তারপর লিপস্টিক লাগান। বা  ফাউন্ডেশনও লাগাতে পারেন। এতেও কাজ হবে।

 

About Desk

Check Also

নিখুঁত মেকাপের কিছু টিপস!

মেকাপ মানে হচ্ছে, খুঁতগুলো ঢেকে ফেলে নিজের সৌন্দর্যটুকু আরো আকর্ষনীয়ভাবে উপস্থাপন করা। আর এই জন্যে …

Leave a Reply